খেপেছে পাকিস্তানি ক্রিকেট বোর্ড

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্রিকেটারদের আন্তর্জাতিক সংস্থা—ফিকার ওপর বেজায় চটেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তাদের ক্ষোভের কারণ, ফিকা পাকিস্তানকে ‘অনিরাপদ’ বলেছে।

পিসিবি পাকিস্তানের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগ পিএসএলের ফাইনাল লাহোরে আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। মূল টুর্নামেন্ট আরব আমিরাতে হলেও শুধু ফাইনাল ম্যাচটি লাহোরে আয়োজন করবে পিসিবি। এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হওয়ার পর ফিকা ক্রিকেটারদের সতর্ক করে দিয়েছে। এতে ক্ষুব্ধ পিসিবি।

গতকাল ফিকা এক বিবৃতিতে বিদেশি ক্রিকেটারদের মার্চে লাহোরে অনুষ্ঠেয় পিএসএলের ফাইনাল থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নেওয়ার পরামর্শ দেয়। কারণ হিসেবে তারা উল্লেখ করে পাকিস্তানের নিরাপত্তা-শঙ্কাকে।

২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট দলের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কার্যত বন্ধ হয়েই আছে পাকিস্তানে। এই আট বছরে টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর মধ্যে কেবল জিম্বাবুয়ে

ক্রিকেট দল ২০১৫ সালে পাকিস্তানে একটি সংক্ষিপ্ত সিরিজ খেলেছে। পাশাপাশি পাকিস্তান গিয়ে তিনটি ওয়ানডে খেলেছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল।

পিসিবি এই মুহূর্তে দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে মরিয়া। পিএসএলের ফাইনালের সঙ্গে সঙ্গে ১৮ ও ১৯ মার্চ দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার জন্য তারা আমন্ত্রণ জানিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকেও। মার্চের শেষে ক্যারিবীয় ক্রিকেট বোর্ডের আমন্ত্রণে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে রাজি হওয়ার বিনিময়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে পাকিস্তানের মাটিতে খেলাতে চায় তারা।

ফিকার এই বিবৃতির সমালোচনা করে পিসিবি বলেছে, ‘ফিকা ক্রিকেটারদের পিএসএল ফাইনাল থেকে নিজেদের সরিয়ে নেওয়ার মাধ্যমে সার্বিক ক্রিকেটের মারাত্মক ক্ষতি করছে। এতে পাকিস্তান ক্রিকেটও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে নির্দিষ্টভাবে।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন নিরাপত্তা পরামর্শকের কথা উল্লেখ করে দেওয়া ফিকার সেই বিবৃতিতে বলা হয়, ক্রিকেট আয়োজনের জন্য মারাত্মক অনিরাপদ একটি দেশ।

পিসিবি ফিকার এই বিবৃতিতে ‘উদ্ধত’ উল্লেখ করে এর উদ্দেশ্য নিয়েই প্রশ্ন তুলেছে, ‘পাকিস্তান থেকে হাজার হাজার মাইল দূরে বসে থেকে তারা এ সব কথা কীভাবে বলে যেখানে তারা বিশ্বাসযোগ্য কোনো নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞের নামই উল্লেখ করতে পারেনি।’

পিসিবি বিশ্বের অনেক নামকরা ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব যেমন—ডিন জোনস, অজয় জাদেজা, কার্টলি অ্যামব্রোস, গ্লেন ম্যাকগ্রা, সনাৎ জয়াসুরিয়া, জন্টি রোডস, ব্রায়ান লারা, মার্ক বাউচার, মারভান আতাপাত্তু, হার্শেল গিবস, ডেমিয়েন মার্টিন, অ্যান্ডি রবার্টস, ড্যানি মরিসন, রবিন স্মিথ, অ্যান্ড্রু সাইমন্ডসদের নাম উল্লেখ করে বলেছে এঁরা পাকিস্তানের বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলের বিশেষজ্ঞ ধারাভাষ্যকার হিসেবে প্রায়ই পাকিস্তান সফর করে থাকেন। সূত্র: জিনিউজ।






Related News

  • নতুন ঠিকানায় টাইগারদের সেই কোচ হোয়াটমোর
  • আইসিসিতে বাংলাদেশের প্রতি অস্ট্রেলিয়ার অন্যরকম ভালোবাসা
  • বল কুড়াতে গিয়ে শিশু ক্রিকেটারের মৃত্যু
  • আরও একবার মাটি ও মানুষের হৃদয়ে প্রবেশ করলেন মাশরাফি!
  • শিশুটি ১৬ কোটি বাংলাদেশির গর্ব, বলুন তো কে এই শিশু?
  • টাইগারদের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে ঢাকায় আসছে অস্ট্রেলিয়া
  • গোটা বিশ্বে সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার কারা? জানালেন মাইকেল ক্লার্ক
  • পাকিস্তান সুপার লিগে ‘গোল্ড’ ক্যাটাগরিতে শাহরিয়ার নাফিস