মাস দেড়েকের মধ্যেই ভয়ঙ্কর গতিতে হাজির হবে তারা!

মহাকাশের এই দুই আগন্তুকের কথা আগে জানা ছিল না আমাদের। হঠাৎ করেই গত নভেম্বরে নাসার ‘নিওওয়াইজ’ মহাকাশযানের টেলিস্কোপের চোখে পড়ে যায় ওই দুই আগন্তুক। তাদের একটিকে জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের মনে হয়েছে ভয়ঙ্কর একটি গ্রহাণু বা অ্যাস্টারয়েড। অন্যটি ধূমকেতু। তাদের এও মনে হয়েছে, বহু দূর থেকে যাকে ‘গ্রহাণু’ বলে মনে করা হচ্ছে, তা একটি ধূমকেতুও হতে পারে।

তারচেয়েও ভয়ঙ্কর তথ্য হচ্ছে- আর ঠিক মাস দেড়েকের মধ্যেই প্রায় একই সঙ্গে পৃথিবীর কক্ষপথে ঢুকে পড়বে এই অজানা মহাজাগতিক বস্তুরা।

জানা যায়, ভয়ঙ্কর গতিতে ছুটে আসছে তারা পৃথিবীর দিকে। গ্রহাণুটি ছুটে আসছে বৃহস্পতির পাশ কাটিয়ে গ্রহাণুপুঞ্জ ও মঙ্গলের কক্ষপথ ছুঁয়ে পৃথিবীর দিকে। এই গ্রহাণুটির আবিষ্কার হয়েছে সদ্যই। ২০১৬-র ২৭ নভেম্বরে। এর নাম দেওয়া হয়েছে, ‘২০১৬-ডব্লিউএফ৯’। নভেম্বরে যখন প্রথম হদিশ মিলেছিল এই গ্রহাণুটির, তখন সেটি বৃহস্পতির কক্ষপথে চক্কর মারছিল। এই ভয়ঙ্কর গ্রহাণুটি পৃথিবীর কক্ষপথে ঢুকে পড়বে ফেব্রুয়ারির ২৫ তারিখে। গ্রহাণুটি আকারে বেশ বড়। লম্বায় ০.৩ থেকে ০.৬ মাইল বা আধ কিলোমিটার থেকে ১ কিলোমিটার মতো।

তবে স্বস্তির ব্যাপার হচ্ছে ততটা বিপদের আশঙ্কা নেই এই গ্রহাণুটি থেকে। আপাতত পৃথিবীর কক্ষপথে ঢোকার পর তা আমাদের বাসযোগ্য গ্রহটিকে পাক মেরে আবার চলে যাবে সৌরমণ্ডলের বাইরের দিকে।

অন্য আগন্তুকটি একটি ধূমকেতু। নাসার মহাকাশযান ‘নিওওয়াইজ’-এর টেলিস্কোপের নজরে পড়েছে তা এই গ্রহাণুটির হদিশ মেলার ঠিক এক মাস আগে। এই ধূমকেতুটির নাম দেওয়া হয়েছে- ‘সি/২০১৬ ইউ১ নিওওয়াইজ’। আগামী ১৪ জানুয়ারি ধূমকেতুটি ঢুকে পড়বে সূর্যকে পাক মারা বুধ গ্রহের কক্ষপথে। এই সৌরমণ্ডলে পরিক্রমণের সময় সেটাই হবে সূর্যের থেকে তার সবচেয়ে কম দূরত্ব। এই ধূমকেতুটি ঘুরছে অত্যন্ত দীর্ঘ কোনও কক্ষপথে। যা পেরোতে তার সময় লাগে কয়েক হাজার বছর। তাই এর আগে এই ধূমকেতুটি পৃথিবীবাসীর নজরে পড়েনি। তবে এই ধূমকেতুটি থেকেও আমাদের কোনও বিপদের আশঙ্কা নেই বলেই মনে হচ্ছে।

গত সাত বছরের মহাকাশ পরিক্রমায় এখনও পর্যন্ত নাসার ‘নিওওয়াইজ’ মহাকাশযান প্রায় ৩৪ হাজার গ্রহাণু আবিষ্কার করেছে।






Related News

  • বিশ্বসেরা হাফেজে কোরআন হলেন বাংলাদেশের নাজমুস সাকিব
  • নূর হোসেনের রংমহল থেকে লাপাত্তা তিন সুন্দরী
  • ৫০ হাজার টাকায় অবিশ্বাস্য ১টি পদ্মার বোয়াল
  • এখনো অক্ষত নূর হোসেনের সেই ‘জলসাঘর’
  • নূর আমাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে অনেক যন্ত্রণা দিয়েছে: নীলা
  • ফুটপাতে মটরসাইকেল ওঠালে পুলিশে দিন: আনিসুল হক
  • মুফতি হান্নানের ফাঁসি কার্যকর করা হবে যেকোনো সময়
  • আমাদের দিল্লি দখল করতে লাগবে মাত্র ১০ ঘণ্টা: চীনা সেনা